triratna

received_830003370838824

খেটে খাওয়া দরিদ্র অসহায় মানুষের পাশে….. ত্রিরত্ন সংঘ।

খেটে খাওয়া দরিদ্র অসহায় মানুষের পাশে….. ত্রিরত্ন সংঘ।

দেশ ও দেশের বাহিরে সুপরিচিত সংগঠন ত্রিরত্ন সংঘ খেটে খাওয়া দরিদ্র অসহায় মানুষের পাশে নিত্য প্রয়োজনীয় খাবার ও সচেতনমূলক সামগ্রী বিতরণ করেছেন।

গত ২৬/০৩/২০২০ তারিখ থেকে আগামী ০৪/০৪/২০২০ সারাদেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া মহামারী করোনা কেবিড- 19 এর আক্রমণে সারাবিশ্ব প্রায় সব দেশ অচল হয়ে পড়েছে।এই মহামারী ঠেকাতে দেশে ১০ দিনের ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার।

এতে অসহায় হয়ে পড়েছে দিনমজুর অথ্যাৎ দিনে এনে দিনে খাওয়া মানুষ।তাদের এই দূ-সময়ের কথা চিন্তা করে ত্রিরত্ন সংঘ এই সিদ্ধান্ত নেয়।ত্রিরত্ন সংঘের ডাকে সারা দিয়ে এগিয়ে এসেছেন ত্রিরত্ন সংঘ এর অসংখ্য শুভাকাঙ্ক্ষী। তাদের ও ত্রিরত্ন সংঘ এর সদস্যদের সহযোগীতায় কাজ প্রথম ধাপে অর্ধশতাদিক অসহায় মানুষকে পাশে দাঁড়াতে সক্ষম হয়।

দেশের পরিস্থিতির কারণে উপস্থিত ছিলেন শুধু মাত্র সংঘের নব নির্বাচিত সভাপতি সুমন বড়ুয়া কমল,সহ- সাধারণ সম্পাদক সজীব বড়ুয়া,সাংগঠনিক সম্পাদক সীমান্ত বড়ুয়া, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক হৃদয় বড়ুয়া অংশ গ্রহণ করে। বাকি সদস্যরা আসতে চাইলে দেশের পরিস্থিতির কারণে তাদের আসতে বারণ করা হয়।তবে সার্বক্ষণিক তারা ফোনে খবর রাখেন।ত্রিরত্ন সংঘের প্রতিষ্টাতা ও প্রাপ্তন সফল সভাপতি অভি বড়ুয়া অর্ণব ভিডিও কলের মাধ্যমে সব কিছু মনিটরিং করে।

অসহায় মানুষগুলো যখন ত্রিরত্ন সংঘের কাছ থেকে কিছু খাদ্য সামগ্রী ও সচেতনমূলক সামগ্রী পেয়ে অনেক আনন্দিত। তারা ত্রিরত্ন সংঘের সকলকে ধন্যবাদ ও দোয়া করেন। সত্যিই এমন কিছু কিছু উদ্যাগে আছে যেটাতে মানুষ অল্পতে খুশি হয়।এমন দূর্দিনে যে তারা ত্রিরত্ন সংঘ থেকে কিছু সাহায্য সহযোগিতা পেয়েছে তা সত্যিই অতুলনীয়।

হত দরিদ্র মানুষকে বিতরণ শেষে বিহার পরিষ্কার ও ভিক্ষু শ্রমণদের নিরাপত্তা জন্য বিভিন্ন স্থান ও আসবাবপত্রে জীবাণু নাশক ঔষধ স্প্রে করে।উক্ত কার্যক্রমে সংঘের উপদেষ্টা শ্রদ্ধেয় ভান্তে উপানন্দ মহাথের দিক নির্দেশনা প্রদান করেন।

IMG-20200317-WA0001

বিশ্বশান্তি কামনায় সমবেত প্রার্থনা ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে প্রদীপ প্রজ্বলন –ত্রিরত্ন সংঘ।।

বিশ্বশান্তি কামনায় সমবেত প্রার্থনা ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে প্রদীপ প্রজ্বলন –ত্রিরত্ন সংঘ।।

গতকাল ত্রিরত্ন সংঘের উদ্যোগে বিশ্বশান্তি কামনায় সমবেত প্রার্থনা, মহামঙ্গল সূত্র,রতন সূত্র, পঞ্চশীল প্রার্থনা ও জল ঢেলে পূন্যদান করা হয় বিশ্বের সমগ্র মানবজাতি তথা সকল প্রাণীর মঙ্গলার্থ। সমবেত প্রার্থনার শেষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে ১০০ (একশত) প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করা হয়।

কাতালগঞ্জ নবপন্ডিত বৌদ্ধ বিহারে আয়োজিত এ কর্মসূচিতে বিহারধ্যক্ষ এবং ত্রিরত্ন সংঘের উপদেষ্টা শ্রদ্ধেয় উপানন্দ‌ মহাথের সহ উপস্থিত ভিক্ষুসংঘ সূত্রপাঠ করেন। এসময়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকীর প্রদীপ প্রজ্বলন কর্মসূচি উদ্বোধন করেন ত্রিরত্ন সংঘের উপদেষ্টা শ্রদ্ধেয় উপানন্দ‌ মহাথের ও একুশে পদক বিজয়ী বৌদ্ধ‌ নেতৃত্ব এবং ত্রিরত্ন‌ সংঘের উপদেষ্টা ড.‌বিকিরণ প্রসাদ বড়ুয়া।

ড.বিকিরণ প্রসাদ বড়ুয়া বলেন সাম্প্রতিক সময়ের সবচেয়ে দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়া বৈশ্বিক মহামারী নভেল করোনা ভাইরাস। এতে আক্রান্ত এশিয়া,চীন, জাপান,ইউরোপ, আমেরিকা, মিডেল ইষ্ট সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। তিনি সবাইকে সর্তকতার সহিত চলাফেরা ও বিভিন্ন উপদেশ প্রদান করেন।

ত্রিরত্ন সংঘের প্রবাসী সদস্য, শুভাকাঙ্ক্ষী ও সকল পৃথিবীর মানুষের উদ্দেশ্যে করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে সমবেত প্রার্থনার আয়োজন করেছে ত্রিরত্ন সংঘ।আমরা আমাদের প্রবাসী সদস্যদের পাশে আছি সব সময়। মানবতার সেবক হয়ে।

সংগঠনের সভাপতি সুমন বড়ুয়া কমল ও সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী জয়তু বড়ুয়ার নেতৃত্বে সংগঠনের সদস্যবৃন্দসহ উপস্থিত উপসক-উপসিকা সহ সকলে মানবজাতির মুক্তি কামনায় সমবেত প্রার্থনা করেন ও আক্রান্ত সকলের রোগমুক্তি কামনা পূন্যদান করেন।

IMG-20200312-WA0000

নতুন কমিটির প্রথম উদ্যোগ মানবতার জন্য– ত্রিরত্ন সংঘ।।

 

ত্রিরত্ন সংঘের নতুন কমিটির প্রথম উদ্যোগ মানবতার জন্য।

মেয়ে ও তার পরিবারের সুনামের স্বার্থে পরিচয় গোপন করা হল। মেয়েটির বাবা যায় তিন বছর আগে পরলোকমন করেন। দুই বোন আর মায়ের অভাবের সংসারে কোন রকমে বড় হয়।মোটামোটি স্নাতকোত্তর পাশ করে।হঠাৎ করে বিয়ের পাকা কথা ও হয়ে যায়। কিন্তু বিয়ে মানে তো অনেক টাকার ব্যাপার। তাই অসহায় মা ত্রিরত্ন সংঘের সদস্যদের কাছে তার মেয়ের বিয়ের জন্য আবেদন করেন।

খুব স্বল্প সময়ে সংগঠনের সদস্যরা, শুভানুধ্যায়ীরা যেভাবে সাড়া দিয়েছেন তার জন্য আমরা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি । দুঃস্থ অসহায় পিতৃহারা মেয়েটির বিবাহে আর্থিক সহযোগিতার জন্য তার মা আকুল আবেদন জানিয়েছিলেন।

মাত্র ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে তার জন্য ত্রিরত্ন সংঘের উদ্যোগে ১১,৬০০/= (এগার হাজার ছয়শত) টাকা সংগ্রহ করা হয়।গতকাল ১১/৩/২০২০ইং সন্ধ্যায় ৭:০০ টায় কাতালগঞ্জ নবপন্ডিত বিহারে‌ বিহারধ্যক্ষ ও সংগঠনের উপদেষ্টা শ্রদ্ধেয় উপানন্দ‌ মহাথের’র উপস্থিতিতে এ আর্থিক সহযোগিতা তুলে দেওয়া হলো।

আর্থিক সহযোগিতা তুলে দেওয়ার পরে মেয়েটির মায়ের সাথে দীর্ঘক্ষণ কথা বলে তাদের পরিবারের খোঁজখবর নেওয়া হয়। মেয়েটির মা সংঘের সকল সদস্য/সদস্যাদের ও যারা আর্থিক সহযোগিতায় এগিয়ে এসেছেন তাদের ও তাদের পরিবারের সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে পূন্যদান করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ত্রিরত্ন সংঘের নবনির্বাচিত কমিটির অর্থ সম্পাদক বাবু সুশান্ত বড়ুয়া ,সহ -সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য বড়ুয়া, প্রচার সম্পাদক দেবু বড়ুয়া ও মহিলা সম্পাদিকা অবন্তিকা বড়ুয়া প্রমুখ।

received_1111523802528453

বাংলাদেশের ২য় বৃহত্তম দণ্ডায়মান বুদ্ধপ্রতিবিম্বের বুদ্ধাভিষেক ও একক সদ্ধর্মদেশনা অনুষ্ঠান…ত্রিরত্ন সংঘ।।

বাংলাদেশের ২য় বৃহত্তম দণ্ডায়মান বুদ্ধপ্রতিবিম্বের বুদ্ধাভিষেক ও একক সদ্ধর্মদেশনা অনুষ্ঠান…ত্রিরত্ন সংঘ।।

গত ২৮শে ফেব্রুয়ারি ২০২০ সাল রোজ শুক্রবার শুভ দিনে ভারত – বাংলা উপমহাদেশের সর্বজন নন্দিত সাধক প্রবর, বাংলার মহাপরিব্রাজক, সদ্ধর্মের আলােকবর্তিকা, ধুতাঙ্গ সাধক ভদন্ত শরণংকর থের মহােদয়ের ধ্যানপীঠ পুণ্যভূমি জ্ঞানশরণ মহাঅরণ্যে ত্রিরত্ন সংঘ এর উদ্যোগে নির্মিত, বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম দণ্ডায়মান (৩৬ফুট) বুদ্ধ প্রতিবিম্বের বুদ্ধাভিষেক ও একক সদ্ধর্মদেশনাঅনুষ্ঠিত হয়।

২০১৬সালের ১২ই ফেব্রুয়ারি ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও কাজের শুভ সূচনা করেন শ্রদ্ধেয় শরণংকর থের ভান্তে ও লায়ন আদর্শকুমার বড়ুয়া(পি,এম,জে, এফ)। বাংলাদেশ সহ বহিঃবিশ্বে অবস্থানরত সকল বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের আর্থিক সহযোগীতায় ও অংশগ্রহণে এই বুদ্ধপ্রতিবিম্বের নির্মাণ কাজ শেষ করা হয়।

শিল্পী মংলা রাখাইন তার নান্দনিক শৈল্পিক চেতনায় ৩৬ ফুট দণ্ডায়মান বুদ্ধপ্রতিবিম্ব আসন ও বুদ্ধপ্রতিবিম্ব নির্মাণ করে।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই ভোর ৫টায় সুত্রপাঠ করা হয়। বুদ্ধের আসন পরিষ্কার ও পুষ্প দিয়ে সাজানো সহ চারপাশে জল সিঞ্চয়ন করা হয়। সকল ৯:০০টায় শ্রদ্ধেয় ভিক্ষু সংঘ পিন্ডচারন করেন। এর পর হাজার হাজার ধর্ম প্রাণ নর-নারীর অংশগ্রহণে দণ্ডায়মান বুদ্ধপ্রতিবিম্বের বুদ্ধাভিষেক করেন শ্রদ্ধেয় শরণংকর থের ও শ্রদ্ধেয় ভান্তের শিষ্যরা।

অভিষেক অনুষ্ঠানের ২য় পর্বে একক সদ্ধর্মদেশনা ও আলোচনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন সংঘরাজ ভিক্ষুমহাসভার বর্ষীয়ান ভিক্ষু ব্যাক্তিত্ব প্রজ্ঞাজ্যোতি মহাথের(অধ্যক্ষ ভগবান পুর ধর্ম্মাঙ্কুর বৌদ্ধ বিহার)। সদ্ধর্মদেশনা প্রদান করেন শ্রদ্ধেয় ধুতাঙ্গ সাধক ভদন্ত শরণংকর থের।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মালয়েশিয়া থেকে আগত ভদন্ত লোচাং ডেজো লামা ভিক্ষু(মালয়েশিয়া),সংঘশ্রী থের( অধ্যক্ষ আবুরখীল গৌতম বিহার) এছাড়াও অনুত্তর পূন্যক্ষেত্রে মহান ভিক্ষু সংঘের উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে সম্মানীত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বৌদ্ধ কৃষ্ঠি প্রচার সংঘ যুব এর সাধারণ সম্পাদক সুব্রত বরণ বড়ুয়া, ত্রিরত্ন সংঘের পৃষ্ঠপোষক দুলাল কান্তি বড়ুয়া, বাংলাদেশ ত্রিপিটক রিসার্চ সোসাইটির সিনিয়র সহ-সভাপতি তমাল বড়ুয়া, বাবু সুদুল কান্তি বড়ুয়া সাধারণ সম্পাদক ভেন শরণংক ইন্টারন্যাশনাল ফাউন্ডেশন।
অনুষ্টানের স্বাগতবক্তব্য প্রদান করেন ত্রিরত্ন সংঘের অর্থ সম্পাদক প্রবীর বড়ুয়া, সমাপনী বক্তব্য প্রদান করেন সংঘের সভাপতি অভি বড়ুয়া অর্ণব ও সঞ্চালনায় ছিলেন অনামিকা ইন্টারন্যাশনালের সত্ত্বাধিকারী দানশীল ব্যাক্তিত্ব ব্যবসায়ী বাবু ছোট বড়ুয়া

অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ত্রিরত্ন সংঘ ও ভেন শরণংকর ইন্টারন্যাশনাল ফাউন্ডেশন।।
সার্বিক সহযোগিতায় পুণ্যভূমি জ্ঞানশরণ মহারণ্যের সকল সেবকবৃন্দ সহ বিভিন্ন বৌদ্ধ ধর্মীয় সংঘটন।

FB_IMG_1578712924738

বান্দরবানের দুর্গম এলাকায় ত্রিরত্ন সংঘের উদ্যোগে দানকৃত বুদ্ধপ্রতিবিম্বের বুদ্ধ অভিষেক —ত্রিরত্ন সংঘ।।

বান্দরবানের দুর্গম এলাকায় ত্রিরত্ন সংঘের উদ্যোগে দানকৃত বুদ্ধপ্রতিবিম্বের বুদ্ধ অভিষেক —ত্রিরত্ন সংঘ।।

বাংলাদেশ সহ বহিঃবিশ্বে সকলের কাছে সুপরিচিত সংগঠন ত্রিরত্ন সংঘের উদ্যোগে বান্দরবান জেলার বালাঘাটার দুর্গম পাহাড়ি এলাকার মনোরম পরিবেশের ক্যায়াং কাট্টলী পাড়া বৌদ্ধ বিহারে দানকৃত বুদ্ধপ্রতিবিম্বের অভিষেক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
মারমা সম্প্রদায়ের এই বৌদ্ধ বিহারের বুদ্ধ অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মারমাদের বড় ভান্তে কউইদ্যা মহাথের সহ ১৮জন ভিক্ষুসংঘ। উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংঘের পৃষ্ঠপোষক ব্যাংকার দুলাল কান্তি বড়ুয়া, সংঘের সভাপতি অভি বড়ুয়া(অর্ণব), সহ সাধারণ সম্পাদক বিকাশ বড়ুয়া,সংঘের কার্যকরী সদস্য সুশান্ত বড়ুয়া,সদস্য শুভ কৌশিক বড়ুয়া,শিকর বড়ুয়া ও সুমেদ বড়ুয়া।
এছাড়াও এই পূন্যময় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন কাট্টলী পাড়া বৌদ্ধ বিহারের সভাপতি কারবারি ছোবুশে মারমা,সাধারণ সম্পাদক চথোয়াই মং মারমা, মেম্বার পুকোয়াই মং মারমা,উক্য ওয়াই মারমা ও ক্যহ্লা চিং মারমা। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বিহারের বিহার অধ্যক্ষ শ্রদ্ধেয় উ আয়ারা মহাথের ভান্তে। অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন  অশ্বজীৎ শ্রমণ।।

এই পুন্যময় অনুষ্ঠানে দূরদূরান্ত থেকে উপাসক উপাসিকা উপস্থিত হয়ে পূন্যময় অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে। ভিক্ষু সংঘ বুদ্ধ অভিষেক অনুষ্ঠান শেষে পুন্যরাশি সকল প্রাণীর সুখ শান্তি ও দীর্ঘায়ু কামনায় দান করে।
কাট্টলী পাড়া বৌদ্ধ বিহারের বিহার কমিটি ত্রিরত্ন সংঘের কাছে একটি বুদ্ধপ্রতিবিম্ব এর জন্য আবেদন করলে সংঘের সাধারণ সভায় বুদ্ধপ্রতিবিম্বটি দানের উদ্যোগে গ্রহণ করা হয়। সংঘের সহ সাধারণ সম্পাদক বিকাশ বড়ুয়া অর্থায়নে বুদ্ধপ্রতিবিম্বটি দান করা হয় কাট্টলী পাড়া বৌদ্ধ বিহারে। ৬ফুটের সুদর্শনীয় এই বুদ্ধপ্রতিবিম্বটি দেখে কাট্টলী পাড়ার গ্রামবাসীরা অনেক প্রশান্তি লাভ করে। তারা এতোই আনন্দিত হয় যে বুদ্ধপ্রতিবিম্বের অভিষেক অনুষ্ঠান অনেক বড় করে নানা আয়োজনের মাধ্যদিয়ে করার উদ্যোগ নেয়।

বুদ্ধ অভিষেক অনুষ্ঠানের পাশেপাশি ছিলো বুদ্ধ ধাতু পূজা,বুদ্ধ পুষ্প পুজা, ভিক্ষু সংঘকে পিন্ডদান সহ পাঁচশতের অধিক অতিথি আপ্যায়নের ব্যবস্থা। অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে গ্রাম বাসিরা বিহার ও বিহার প্রাঙ্গণকে ধর্মীয় পতাকা ও নানা রঙ্গিন কাগজ দিয়ে সাজিয়েছে।

received_464961124433470

এক যুগপূর্তি, কৃতিশিক্ষার্থী সংবর্ধনা, শিশু ত্র্যাওয়ার্ড চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা,আজীবন সদস্য সম্মাননা,বর্ষসেরা সদস্য নির্বাচন ও পুরস্কার বিতরণ সম্পন্ন —–ত্রিরত্ন সংঘ।।

এক যুগপূর্তি, কৃতিশিক্ষার্থী সংবর্ধনা, শিশু ত্র্যাওয়ার্ড চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা,আজীবন সদস্য সম্মাননা,বর্ষসেরা সদস্য নির্বাচন ও পুরস্কার বিতরণ সম্পন্ন —–ত্রিরত্ন সংঘ।। (more…)

FB_IMG_1577977028215

হাজার প্রদীপ প্রজ্জ্বলন ২০২০–ত্রিরত্ন সংঘ

নতুন বছরটা শুরু হয় যদি নতুন কিছু দিয়ে। যদি শুরু করা যায় কোন পূন্য কাজ দিয়ে তাহলে কেমন হয়!!

২০১৯ সালের সকল গ্লানি,জড়তা মুছে, নতুন বছর অথ্যাৎ “২০২০” ১লা জানুয়ারিকে স্বাগতম জানাতে ত্রিরত্ন সংঘের মেয়ে সদস্যারা আয়োজন করেছে হাজার প্রদীপ প্রজ্জ্বলন ও সমবেত প্রার্থনা।হাজার প্রদীপের আলোয় আলোকিত হোক বিশ্বের সকল মানুষের হৃদয়।

ত্রিরত্ন সংঘের মেয়ে সদস্যাদের উদ্যোগে গত ০১/০১/২০২০ ইং রোজ বুধবার সন্ধ্যা ৬:০০ টায় “পূর্ণাচার আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ বিহার “প্রাঙ্গণে সমবেত প্রার্থনা ও হাজার প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের আয়োজন করা হয়েছে।।সেই সময় উপস্থিত ছিলেন পূর্ণাচার আন্তজাতিক বৌদ্ধ বিহারের উপাধ্যক্ষ ও অধ্যক্ষ সহ অন্যান্যা পূজনীয় ভিক্ষু সংঘসহ উপসক-উপসিকাগন।
ত্রিরত্ন সংঘের হাজার প্রদীপ প্রজ্জ্বলনে প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল কোন বৌদ্ধ ছেলে মেয়েরা যেন ধর্মান্তরিত না হয়।
ছেলে মেয়েদের ধর্মান্তর রোধ করতে বিহার মুখী করুন।।

হাজার প্রদীপ প্রজ্জ্বলন শেষে সবাই সমবেত প্রার্থনা করে বিশ্বের সকল প্রাণীর মঙ্গল কামনা করা হয়।
জগতের সকল প্রাণী সুখী হোক।।

আমরাই আগামী দিনের পথ প্রর্দশক,
আমরা করব জয়।।

18217344_1409330019127364_1387915329_n

Jagaran Bouddha Somaja the premises of Chittagong Press Club

Jagaran Bouddha Somaja the premises of Chittagong Press Club

Protest against Feroz Mannan for his unacceptable heinous comment on World’s Greatest Peace lover Super Human Being Goutama Buddha through Human Chain and Protest Rally by  Jagaran Bouddha Somaja the premises of Chittagong Press Club, on 28th April Friday at 3.00 p.m. In the daily Janakantha Feroz Mannan reported that The Buddha is a terrorist referring to Wikipedia which is quite wrong. There is no such thing in Wikepedia. Also he told that the meditation Centers in Chittagong Hill Tracts are patronising the terrorists with the ideals of 969 theory as formed in Myanmar. 9 for the virtuous qualities of The Buddha, 6 for the virtuous qualities of the great Dhamma and 9 for the virtuous qualities of the Dhamma. His reports are malicious and purpose oriented. The Buddhists demand that he must be taken into justice otherwise the Buddhists of Bangladesh will continue to hesitate till his arrest for justice. He in disguise is trying to jeopardise the communal harmony and is tactfully trying to spread hatred amongst the Muslim brothers and sisters. But his country will go ahead with communal harmony under the leadership of Bangabandhu daughter Janantri Desharatna Prime Minister Sheikh Hasina we hope. We request our Prime Minister to take the matter seriously and do the justice to the Buddhist community of Bangladesh We extend our deepest love and respect of Thrice Sacred Buddha Purnima 2061 to be observed on 10th May 2017 to our dear Prime Minister.

17351230_1360123584048008_22318265_n

Today 18th March 2017 unveiling ceremony of Memorial book on Journalist Bimalendu Barua

Today 18th March 2017 unveiling ceremony of Memorial book on Journalist Bimalendu Barua
===News: Utfal Barua ==================================
Today 18th March 2017 unveiling ceremony of Memorial book on Journalist Bimalendu Barua , my great teacher was held at AKKhan Memrial Hall , Fulki, Chittagong under the auspices of Journalist Bimalendu Barua Memorial Foundation. Presided over by Foundation Chairman Poet and litterateur Arun DasGupta the ceremony was inaugurated but Most Venerable AggaMaha Pandit Upasanghanayaka Prof. Banasree Mahathera. I, Principal Shimul Barua and Journalist Reaz Rahman were the special guests. Principal Dipak Kumar Talukdar, Engr. Paritosh Kumar Barua, Atal Behari Barua, Physician Mrinal Kanti Barua , Satyabrata Barua Mrs. Anti Barua, Niharendu Barua gave their felicitation speeches. Address of welcome was given by foundation Secretary General Pradip Kumar Barua Ananda. Opening song was sung by Moumita Barua.
The whole ceremony was mastered by Swapnil Barua Dana.