16118283_1299670710093296_1418138445_n

Today is the 85th birth day of HH Sanghanayaka Suddhananda Mahathera,

Today is the 85th birth day of HH Sanghanayaka Suddhananda Mahathera, 28 th Sanghanayaka of Bangladesh Bouddha Bhikkhu Mahasabha and President of Bangladesh Bouddha Kristi Prachar Sangha. The birth day was enthusiastically observed by the people of Rangunia, specially by the people of Padua. I attended as Special Guest in the ceremony Dr. Hasan Mahmood MP and Ex Minister was the Chief Guest. Mr. Dilip Barua , Ex Minister inaugurated the ceremony. Dr. Pranab Kumar Barua was the Key Speaker. Other distinguished guests such as Lion MK Bashar, Mr. Md. Shah, Prof. Dr. Uttam Kumar Barua, Mr. Ranjit Kumar Barua, Mrs. Nandita Barua, Mr. Devapriya Barua were also present.Prof. Dr. Rafiqul Islam Vice Chancellor of CUET presided. Nearly one hundred monks including Upasanghanayaka Prof. Banasree Mahathera, Saddharmarashmi Ratanasree Mahather, Saddhammajyoti Sunanda Mahathera, Ven Bodhimitra Mahathera, Prof. Summedhananda Mahathera , Ven Karuna Shastri from India and many distinguished monks from Bangladesh were present. More than ten thousand people attended the ceremony. It was a unique occasion in the history of Padua. In the same occasionVen Paramananda Thera became Mahathera, Ven. Dharmanand Thera became Mahathera, Ven Karunananda Bhikkhubecame Thera according to Vinaya.
15825993_1291706474223053_3491281996403406631_n

পাহাড়িদের মাঝে ত্রিরত্ন সংঘের শীতবস্ত্র বিতরণ।

 

পাহাড়িদের মাঝে ত্রিরত্ন সংঘের শীতবস্ত্র বিতরণ।
********************************************************

কাউখালীর বেতবুনিয়ার বেনুবনের মানাইপাড়ার বেনুবন উত্তমানন্দ ধর্মবন বিহার প্রঙ্গণে ত্রিরত্ন সংঘের উদ্যোগে শতাধিক পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।এটি ছিলো ত্রিরত্ন সংঘের শীতবস্ত্র বিতরণের প্রথম পর্ব।এই শীতে অনেকে বনভোজন ও নানা ভ্রমন নিয়ে ব্যস্ত আছে, সেখানে ত্রিরত্ন সংঘের সসদস্যরা পাশে দাঁড়িয়েছে পাহাড়ে বসবাসরত শীতে কষ্ট পাওয়া মানুষের পাশে।শীতার্তদের সাথে কাটিয়েছে কিছুটা সময়।তাদের সাথে থেকে ত্রিরত্ন সংঘের সদস্যরা তীব্র শীতে কষ্টে কাটানো জীবন চলার কথা শুনেছে। এই শীতবস্ত্র বিতরণ ও সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভার সভাপতিত্বের দায়িত্ব পালন করেন ত্রিরত্ন সংঘের সাধারণ সদস্য বাবু পুলক বড়ুয়া,উদ্বোধক ছিলেন চম্পা রানী বড়ুয়া,প্রধান অতিথি ছিলেন মাস্টার সাধন বড়ুয়া, বিশেষ আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ত্রিরত্ন সংঘের সভাপতি বাবু অভি বড়ুয়া অর্ণব, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ত্রিরত্ন সংঘের সাধারণ সম্পাদক বাবু সুমন বড়ুয়া কমল।এছাড়াও বক্তব্য রাখেন তেমিয় বড়ুয়া, ত্রিরত্ন সংঘের মহিলা সদস্য হিমাদ্রি বড়ুয়া।এতে সঞ্চালনায় ছিলেন বাবু বাবলু বড়ুয়া ও বাবু টিপলু বড়ুয়া।এই শীতবস্ত্র বিতরণের কার্যকরী কমিটির প্রধান ছিলেন বাবু সিমান্ত বড়ুয়া।এই শীতবস্ত্র বিতরণে সার্বিকভাবে সাহায্য সহযোগিতায় করেন অপুর্ব বড়ুয়া অপু,নিশু বড়ুয়া,সুমিত্র বড়ুয়া,মুন্না বড়ুয়া,রবিন বড়ুয়া,সুপক বড়ুয়া,নিলয় বড়ুয়া,জিতু বড়ুয়া।এই সহযোগীতা কারিদের কাছে ত্রিরত্ন পরিবার কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছে।ত্রিরত্ন সংঘের দেয়া শীতবস্ত্র পেয়ে এই অসহায় মানুষ গুলো অনেক খুশি ও আনন্দিত হয়।তাদের মুখের ফুটে উঠে উজ্জ্বল হাসি।তাদের এই হাসিটুকু দেখেই ত্রিরত্ন পরিবার সার্থকতা মনে করে।এছাড়াও ত্রিরত্ন সংঘ বিহারে অবস্থানরত শ্রমণ ও গহীন অরন্যে ধ্যানেরত তিন ভিক্ষু সংঘকেও শীতবস্ত্র দান করে। শীতবস্ত্র বিতরণ শেষে ধ্যানী ভিক্ষার সাথে দেখা করে ধর্মদেশনা শ্রবণ করার পাশাপাশি সমবেত প্রার্থানা করে অর্জিত পূন্যরাশি সকলের উদ্দেশ্যে দান করে।যাতে জগতের সকল প্রানী রোগ মুক্ত হয়, বিপদ মুক্ত হয়,শত্রু মুক্ত হয় এবং সুখী হয়।
এছাড়াও আগামীকাল ত্রিরত্ন সংঘের ২য় বারের মত গৃহহীন অসহায় মানুষদের মাঝে আবারো শীতবস্ত্র বিতরণ করা হবে।

15731225_1280786008648433_1912662844_n

মানবতার সার্বজনীন চর্চায় প্রতিষ্ঠিত হয় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি

মানবতার সার্বজনীন চর্চায় প্রতিষ্ঠিত হয় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি                                                           ========================                                                                                                                                   ★★শিবা চৌধুরী★★ ————————————

‘প্রজন্ম ভাবনায় মানবতা’ এ শ্লোগানকে ধারণ করে বুড্ডিস্ট হিউম্যানিটি এসোসিয়েশন (বিএইচএ) গত ২৩শে ডিসেম্বর ২০১৬, রোজ – শুক্রবার নগরীর নন্দনকাননস্থ ফুলকি অডিটোরিয়ামে দিনব্যাপী আয়োজনমালা নিয়ে উদযাপন করে অর্ধযুগ পূর্তি উৎসব ২০১৬।এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার প্রাপ্ত দেশবরেণ্য কথাসাহিত্যিক হরিশংকর জলদাস, বাংলাদেশ বৌদ্ধ কৃষ্টি প্রচার সংঘ এর সাংগঠনিক সম্পাদক বাবু প্রীতিশ রঞ্জন বড়ুয়া এবং বাংলাদেশ বৌদ্ধ সমিতি (যুব) এর সাধারণ সম্পাদক বাবু স্বপন বড়ুয়া।অনুষ্টান উদ্বোধন করেন লতিফা সিদ্দিকা ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ, লেখক ও গবেষক অধ্যাপক শিমুল বড়ুয়া এবং সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের উপদেষ্টা ও কাফকো’র চীফ মেডিকেল অফিসার ডা. তরুণ তপন বড়ুয়া। অনুষ্টানে প্রধান অতিথি প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, মানবতার সার্বজনীন চর্চায় প্রতিষ্ঠিত হয় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি। বুড্ডিস্ট হিউম্যানিটি এসোসিয়েশন (বিএইচএ)’র সকল সদস্য সেই চর্চায় ও উদ্বুদ্ধকরণে প্রশংসার দাবিদার।সহায়হীন মানবেতর মানুষের কাছে বুদ্ধের অমিত দর্শন মানবতা ছড়িয়ে দিতে তারা অবিরাম ভুমিকা রাখছে এবং ভবিষ্যতেও তাদের এই ধারা অব্যাহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন-চবি উপাচার্য।  সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শিবা চৌধুরী’র সঞ্চালনায় এতে সংগঠনের পক্ষে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি সফল বড়ুয়া শ্রেষ্ঠ এবং অন্যান্য সদস্যদের মধ্যে সুনয়ন বড়ুয়া, পলাশ বড়ুয়া, ইলোরা বড়ুয়া জুই ও তপু বড়ুয়া বক্তব্য রাখেন। দিনব্যাপী এই আয়োজনে সকালবেলা চিত্রাঙ্কন ও বৌদ্ধ সংগীত প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয় এতে প্রায় শতাধিক প্রতিযোগি মোট চারটি বিভাগে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। বিকেলবেলার আলোচনা সভায় সংবর্ধিত হয়েছেন নন্দিত কীর্তনীয়া ও সাবেক কাস্টমস কর্মকর্তা বাবু শাক্যপদ বড়ুয়া, আন্তর্জাতিক মানবিক সংস্থার সাবেক কর্মকর্তা, বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনের নিয়মিত সংগীতশিল্পী বাবু ত্রিদিব বড়ুয়া রানা, বিএইচএ’র স্বাস্থ্য সম্পাদক ডা. সুদীপ্ত বড়ুয়া ও চলো সবাইকে নিয়ে বাঁচি-এই শ্লোগানধারী সামাজিক সংগঠন মানবিক।সন্ধ্যায় সংগঠনের সদস্য মৌমিতা বড়ুয়া ও চয়ন বড়ুয়ার যৌথ গ্রন্থনা পরিচালনা উপস্থাপনায় নবীন প্রবীন সমন্বয়ে গান কবিতা কথামালায় এক মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।উল্লেখ্য যে, ‘প্রজন্ম ভাবনায় মানবতা’ এই শ্লোগান নিয়ে একঝাঁক সৃষ্টিশীল বৌদ্ধ তরুনদের সমন্বয়ে মানবতায় নিবেদিত বুড্ডিস্ট হিউম্যানিটি এসোসিয়েশন (বিএইচএ) ২০১১ সালের প্রথমার্ধে প্রতিষ্ঠিত হয়।

15683088_790210757783400_1933155834_n

আগামী ৩০ ডিসেম্বর ২০১৬ শুক্রবার রুদুরা বুদ্ধানন্দ ধর্মমিত্র বৌদ্ধ ভিক্ষু শ্রামণ প্রশিক্ষণ ও সাধনা কেন্দ্র’র ১ম বর্ষ পূর্তি উদযাপন,সূত্রপাঠ প্রতিযোগিতা ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান

আগামী ৩০ ডিসেম্বর ২০১৬ শুক্রবার রুদুরা বুদ্ধানন্দ ধর্মমিত্র বৌদ্ধ ভিক্ষু শ্রামণ প্রশিক্ষণ ও সাধনা কেন্দ্র’র ১ম বর্ষ পূর্তি উদযাপন,সূত্রপাঠ প্রতিযোগিতা ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান

==============================================

আগামী ৩০ ডিসেম্বর ২০১৬ শুক্রবার ঐতিহ্যবাহী রুদুরা আনন্দ নিকেতন বৌদ্ধ বিহারে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে রুদুরা বুদ্ধানন্দ ধর্মমিত্র বৌদ্ধ ভিক্ষু শ্রামণ প্রশিক্ষণ ও সাধনা কেন্দ্র’র ১ম বর্ষ পূর্তি উদযাপন, সংবর্ধনা ও সূত্রপাঠ প্রতিযোগিতা । উক্ত অনুষ্ঠানে তালসরা মুৎসুদ্দীপাড়া বিবেকারাম বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত শাসনমিত্র মহাস্হবির সভাপতি হিসাবে, সাতবাড়িয়া বেপারীপাড়া রত্নাকুর বিহারের অধ্যক্ষ অনুরুদ্দ মহাস্হবির প্রধান অতিথি হিসাবে, ভান্ডারগাঁও তিরতন বিহারে অধ্যক্ষ ভদন্ত জ্ঞানরক্ষিত মহাস্হবির বিশেষ অতিথি হিসাবে, তালসরা আনন্দরাম বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত জিনরতন থের উদ্ধোধক হিসাবে , বড়িয়া মনোরঞ্জন বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত অনোমাদর্শী মহাস্হবির প্রধান আলোচক হিসাবে,নাইখাইন সন্তোষ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত জিনপ্রিয় স্হবির, কর্তালা বেলখাইন সদ্ধর্মলংকার বিহারের আবাসিক ভদন্ত সুমনতিষ্য ভিক্ষু আলোচক হিসাবে উপস্হিত থাকার সদয় সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন। এছাড়াও ১ম বর্ষ পূর্তি উপলক্ষে ০৪ জন সাংঘিক ব্যক্তিত্ব ও ০৪ জন সমাজসেবককে সংবর্ধনা প্রদান করা হবে। সংবর্ধিতরা হচ্ছেন যাঁরা -০৪ জন সাংঘিক ব্যক্তিত্বগণ ঃ – ভদন্ত শাসনমিত্র মহাস্হবির(মুৎসুদ্দীপাড়া),বোধিমিত্র স্হবির(পাথরঘাটা,চট্রগ্রাম),শীলরত্ন স্হবির,ভদন্ত আলোকমিত্র থের (বাংলাদেশ বৌদ্ধ সেবাসদন), ০৪ জন সমাজসেবকগন ঃ- ডাঃ বিমলেন্দু বড়ুয়া(বড়িয়া) শিশুমিত্র বড়ুয়া(কানাইমাদারী) অরুন বড়ুয়া দেবু(মৈতলা) রঞ্জন বড়ুয়া (চেনামতি),ইন্দসেন বড়ুয়া ও মৃনাল কান্তি বড়ুয়া (ভান্ডারগাঁও)। কেন্দ্রে’র প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ভদন্ত বোধিরতন মহাস্হবির মহোদয় উক্ত মহতী পূণ্যানুষ্ঠানে সকল ধর্মপ্রাণ সুধীজনকে উপস্হিত হওয়ার জন্য বিশেষ আহবান জানিয়েছেন ।

15682710_790202991117510_2124160577_n

মহাসতিপটঠান সুত্রপাঠ ও অষ্টপরিস্কাদান সহ সংঘদান অনুষ্ঠান

মহাসতিপটঠান সুত্রপাঠ ও অষ্টপরিস্কাদান সহ সংঘদান অনুষ্ঠান
*******************************************************
রাউজানের ছাদংগড়খীল,বৃহত্তর হোয়ারাপাড়ার অনিল সওদাগরের বাড়িতে প্রয়াত পিতা অনিল কান্তি বড়ুয়ার ২০তম মৃত্যুবার্ষিকী ও প্রয়াত মাতা জ্যোৎস্না প্রভা বড়ুয়ার ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী, সুপান্থ বড়ুয়ার প্রব্রজ্যা ও প্রতীতি বড়ুয়ার কর্ণ অলংকরণ উপলক্ষে মহাসতিপটঠান সুত্রপাঠ ও অষ্টপরিস্কাদান সহ সংঘদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।এতে প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন অগগমহাপন্ডিত অধ্যাপক বনশ্রী মহাথের সভাপতির আসন অলংকৃত করেন সদ্ধর্মরশ্মি রতনশ্রী মহাথের, উদ্বোধকের আসল অলংকৃত করেন সদ্ধর্মররত্ন জ্ঞানানন্দ মহাথের, সম্মানিত অতিথির আসন অলংকৃত করেন ভদন্ত জীবনানন্দ মহাথের,ভদন্ত আনন্দমিত্র মহাথের, সদ্ধর্মজ্যোতি শিক্ষাবিদ সুনন্দ মহাথের, প্রধান স্বধর্মদেশকের আসন অলংকৃত করেন ভদন্ত বোধিমিত্র মহাথের।দু দিন ব্যাপী এই মহতি পূন্যময় অনুষ্ঠানে কৃষ্টি প্রচার সংঘের ঊর্ধ্বতন কর্মকতা সহ আত্মীয়স্বজন ও গ্রামবাসীরা উপস্থিত ছিলেন।

15666261_1278691718857862_143016803_n

রাঙ্গামাটি রাজবন বিহার কোন পর্যটন কেন্দ্র নয় ধর্মীয় তীর্থ ভূমি

রাঙ্গামাটি রাজবন বিহার কোন পর্যটন কেন্দ্র নয় ধর্মীয় তীর্থ ভূমি
============================================

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
রাঙামাটির প্রাচীন ও শ্রদ্ধা স্থান বনভান্তের রাজবন বৌদ্ধ বিহার। প্রায় প্রতিদিনই এই বিহারে দেখতে আসেন পুণ্যার্থীসহ দেশ-বিদেশের অসংখ্য পর্যটক। আর পর্যটন মৌসুম হওয়াতে পর্যটকদের পতচারণায় মুখর এ বিহার। ১৯৭৪ সালে শ্রীমৎ সাধনানন্দ মহাস্থবির (বনভান্তে) যখন রাঙামাটিতে এসেছিলেন তখন বৌদ্ধ বিহারটি নির্মাণ করা হয়।

বৌদ্ধ বিহারে রয়েছে উপাসনা বিহার, দেশনালয়, ভিক্ষু সংঘের থাকার ঘর, শ্রমনদের থাকার ঘর, বনভান্তের ধ্যানের গুহা ও লাইব্রেরিসহ বিভিন্ন স্থাপনা। এই স্থাপনাগুলোর বিভিন্ন কারুকার্যও নজরে আসার মত।

বাংলাদেশের বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের পবিত্র স্থান এই রাজবন বিহার । বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী ব্যতিত দূর দূরান্ত থেকে প্রতিদিন ঘুরতে আসে হাজারো পর্যটক । কিন্তু দুঃখের সঙ্গে বলতে হচ্ছে, ইদানীং পুণ্যার্থী ছাড়াও প্রচুর পর্যটক দর্শনার্থীদের আগমনের ফলে তাদের পক্ষে যেসব নীতিমালা, আচরণ করা সম্ভব হচ্ছে না।

অন্যদিকে পর্যটন কেন্দ্র সদৃশ তুলনা করে তাদের নিজস্ব নানারকম আপত্তিকর ভঙ্গিমায় ছবি তোলা, ভিডিও করা, ঘোরাঘুরি, চিৎকার, উচ্চ শব্দ-মহাশব্দ, হৈচৈ, যেখানে সেখানে সিগারেট খাওয়া,টুপিমাথায় বিহারে প্রবেশ করা ইত্যাদি আচরনের পরিপ্রেক্ষিতে বিহারের স্থিতিশীল ও শান্ত পরিবেশকে নষ্ট করা হচ্ছে।

যেহেতু এটি কোনো পর্যটন কেন্দ্র নয়, ধর্মীয় তীর্থ ভূমি। তাই ধর্মীয় পরিবেশ বজায় রেখে সুস্বভাবযুক্ত পরিবেশ বজায় রাখা উচিত ।

15645774_1278261485567552_1907134749_n

ইংরেজী বর্ষ বিদায় ও বরণ বর্ণাঢ্য আয়োজনে ৩ দিনব্যাপী মহাপুণ্যানুষ্ঠান ===সংবাদঃ শাসন রক্ষিত ভিক্ষু

ইংরেজী বর্ষ বিদায় ও বরণ বর্ণাঢ্য আয়োজনে ৩ দিনব্যাপী মহাপুণ্যানুষ্ঠান ===সংবাদঃ শাসন রক্ষিত ভিক্ষু =========================== দু’শতাব্দীর কদলপুর সুধর্মান্দ বিহার তথা বাংলাদেশ ভিক্ষু প্রশিক্ষণ ও সাধনা কেন্দ্র শ্রী মহাবোধি মেত্তা ভাবনা কমপ্লেক্স” উদ্যোগে কদলপুর, রাউজানে ইংরেজী ২০১৬সাল বিদায় এবং ২০১৭সাল বরণ উপলক্ষে আয়োজিত “মেত্তা ভাবনা অনুশীলন” ও ৩ দিনের মহাপুণ্যানুষ্ঠান আগামী ৩০ডিসেম্বর ২০১৬ হতে ১জানুয়ারী ২০১৭ ইং তারিখ পর্যন্ত চলবে।। ধ্যানে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে নিবন্ধন ফরম বিতরণ করা হচ্ছে। এবারে ১০ হতে তৎউদ্ধে যে কোন বয়সের মহিলা-পুররুষ শিক্ষক-শিক্ষার্থী,যুবক-যুবতী,কর্মজীবি, কিশোর-কিশোরী ও উপাসক-উপাসিকা ও ভিক্ষু শ্রামণসহ যে কোন পেশার নর-নারী মেত্তা ভাবনায় অংশ গ্রহণ করতে পারবে। মনোরম পরিবেশে ১০০ জন মেত্তা ভাবনা অনুশীলনে অংশ গ্রহন করার সুযোগ রযেছে। অংশ গ্রহণে ইচ্ছুক প্রার্থীরা নিবন্ধন ফরমটি ফেইজ(Kadalpur Sudharmananda VIHAR) হতে ডাউনলোড করে পূরণ করে দিতে পারবেন অথবা মোবাইলের মাধ্যমে নাম নিবন্ধন করতে পারেন। ৩ দিনের মহাপুণ্যানুষ্ঠানের জন্য সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি। যোগাযোগ-ভদন্ত শাসনরক্ষিত ভিক্ষু, পরিচালক- বিটিসি।০১৮১৫৬৭২৬৭৬(বিকাশসহ)

15682767_789567921181017_1978867221_n

বিদর্শন ভাবনা অনুশীলন, সংবর্ধনা ও সদ্ধর্মসভা

বিদর্শন ভাবনা অনুশীলন, সংবর্ধনা ও সদ্ধর্মসভা ************************************************ আগামী ৬জানুয়ারি-১৩জানুয়ারি ২০১৭ইং আট দিনব্যাপী ভূজপুর বৌদ্ধ পরিষদের উদ্যোগে কর্মবীর প্রয়াত এইচ.সুগতপ্রিয় স্থবির মহোদয়ের যোগ্য উত্তরসুরী, আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ সংগঠন ধর্মকায়া ফাউন্ডেশন থাইল্যান্ড’র বাংলাদেশ প্রতিনিধি ভদন্ত মহীপাল ভিক্ষু’র “থের” বরণ উপলক্ষে বিদর্শন ভাবনা অনুশীলন, সংঘরাজ, উপসংঘরাজগন এর সংবর্ধনা ও সদ্ধর্মসভার আয়োজন করা হয়েছে। বিদর্শন ভাবনা অনুশীলনের উদ্বোধন পরিচারক থাকবেম ভদন্ত সত্যপাল থের।১৩ই জানুয়ারি অনুষ্ঠানের সভাপণ্ডিত করবেন মহামান্য সংঘরাজ ভদন্ত ড, ধর্মাসেন মহাথের, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মিস্টার প্রসাৎ উদায়াছারলাম। প্রধান সদ্বর্মদেশক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন দেব মানব পূজ্য,অরন্য বিহারী,শ্মশানচারী, পাংশুকুলিক চীরবধারী ভদন্ত ড.এফ দীপংকর মহাথের। এছাড়াও উক্ত অনুষ্ঠানে থেরবাদী আদর্শের অন্যতম সাংঘিক সংগঠক বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভা ও সংঘরাজ ভিক্ষু মহামন্ডল’র দু-শতাধীক মহান ভিক্ষু সংঘ, দেশ বিদেশি অতিথি সহ প্রশাসনিক কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন।এই ধর্মীয় অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হবে হারুয়ালছড়ি বৌদ্ধ জেতবন বিহার প্রঙ্গণ ভূজপুর, ফটিকছড়ি চট্টগ্রাম।

15644983_789567667847709_2009433136_n

ধর্মাধিপতি শুদ্ধানন্দ মহাথের’র জন্ম-জয়ন্তী উৎসব

ধর্মাধিপতি শুদ্ধানন্দ মহাথের’র জন্ম-জয়ন্তী উৎসব ************************************************ আগামী ১৪ই ও ১৫ই জানুয়ারি ১৭ইং তারিখ রোজ শনিবার ও রবিবার বাংলাদেশী বৌদ্ধদের অবিসংবাদিত সাংঘিক ব্যক্তিত্ব, বাংলাদেশ বৌদ্ধ কৃষ্টি প্রচার সংঘের সভাপতি ও বাংলাদেশ বৌদ্ধ ভিক্ষু মহাসভার মহামান্য সংঘনায়ক ধর্মাধিপতি শুদ্ধানন্দ মহাথের’র ৮৫তম জন্ম-জয়ন্তী উৎসব রাঙ্গুনিয়ার পদুয়ার, পদুয়া সার্বজনীন বৌদ্ধ বিহারে অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়াও ধর্মাধিপতি শুদ্ধানন্দ মহাথের’র প্রিয় শিষ্য ভদন্ত পরমানন্দ থের(এম,এ) ও ভদন্ত ধর্মানন্দ থের (এম,এ)’র মহাথের বরণ ও ভদন্ত করুনানন্দ ভিক্ষু (এম,এ)’ থের পদে অভিধা প্রদান সহ ভিক্ষুসীমা ঘর প্রতিষ্ঠা করা হবে।এতে বাংলাদেশের বৌদ্ধ সম্প্রদায় সহ দেশ-বিদেশের অনেক সুনামধন্য ব্যক্তি উপস্থিত থাকবেন।

15645501_789567544514388_1953419865_n

১৩০ ফুট উচ্চতা সম্পন্ন বুদ্ধ প্রতিবিম্ব নির্মাণের ভিত্তি স্থাপন এর উদ্ভোদন

১৩০ ফুট উচ্চতা সম্পন্ন বুদ্ধ প্রতিবিম্ব নির্মাণের ভিত্তি স্থাপন এর উদ্ভোদন ************************************************ বঙ্গীয় বৌদ্ধ ইতিহাসের নব জাগরণের প্রতীক পরম পূজনীয় ধুতাঙ্গা সাধক ভদন্ত শরণংকর থের মহোদয়ের স্থায়ী অধিষ্ঠান ভূমি রাঙ্গুনিয়ার ফলাহারিয়া গ্রামের জ্ঞানশরণ মহা-অরণ্য ভূমিতে আগামী ৩০ ডিসেম্বের ২০১৬ ইং রোজ শুক্রবার ১৩০ ফুট উচ্চতা সম্পন্ন ধ্যানমগ্ন মুদ্রায় বুদ্ধ প্রতিবিম্ব ও অশোক স্তম্ব নির্মাণের ভিত্তি প্রস্তর স্থানের উদ্বোধন করা হবে।